বিবৃতি

১৫ জানুয়ারি ২০১৬, শুক্রবার, ১২:১২

জামায়াতের নেতা-কর্মীদের গণহারে গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা

আজ ১৫ জানুয়ারী সকালে হবিগঞ্জ জেলা জামায়াতে ইসলামীর আমীর মাওলানা মুখলেসুর রহমান, নায়েবে আমীর মাস্টার আবদুর রহমান ও সেক্রেটারী জনাব মোশাহেদ আলীসহ ১৪জন বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকে এবং গত ১৪ জানুয়ারী চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডের জামায়াত সমর্থিত কাউন্সিলর জনাব মাইনুল ইসলামকে এবং গত ১৩ জানুয়ারী শিবগঞ্জ পৌরসভার জামায়াত সমর্থিত মহিলা কাউন্সিলর মঞ্জিলা বেগমকে এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার জামায়াত সমর্থিত মহিলা কাউন্সিলর আনোয়ারা বেগম পলিকে পুলিশের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করার ঘটনার তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারী জেনারেল ডা: শফিকুর রহমান আজ ১৫ জানুয়ারী প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “সরকার জামায়াতে ইসলামীকে নেতৃত্ব শূন্য করার হীন উদ্দেশ্যেই জামায়াতে ইসলামীর নেতা-কর্মীগণকে গণহারে গ্রেফতার করছে।
আজ ১৫ জানুয়ারী সকালে পুলিশ অন্যায়ভাবে হবিগঞ্জ জেলা জামায়াতের আমীর মাওলানা মুখলেসুর রহমানসহ জেলা জামায়াতের নেতৃবৃন্দকে বিনা দোষে ও গত ১৪ জানুয়ারী চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডের জামায়াত সমর্থিত কাউন্সিলর জনাব মাইনুল ইসলামকে এবং গত ১৩ জানুয়ারী শিবগঞ্জ পৌরসভার জামায়াত সমর্থিত মহিলা কাউন্সিলর মঞ্জিলা বেগমকে এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার জামায়াত সমর্থিত মহিলা কাউন্সিলর আনোয়ারা বেগম পলিকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করেছে। তারা সম্পূর্ণ নির্দোষ। রাজনৈতিকভাবে হয়রানী করার জন্যই পুলিশ তাদের গ্রেফতার করেছে। সরকারের এ ধরনের ফ্যাসিবাদী আচরণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার জন্য আমি দেশবাসীর প্রতি আহŸান জানাচ্ছি।
হবিগঞ্জ জেলা জামায়াতের আমীর মাওলানা মুখলেসুর রহমান, নায়েবে আমীর মাস্টার আবদুর রহমান ও সেক্রেটারী জনাব মোশাহেদ আলী এবং শিবগঞ্জ পৌরসভা একজন পুরুষ ও একজন মহিলা কাউন্সিলর এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার একজন মহিলা কাউন্সিলরসহ সারা দেশে জামায়াতের গ্রেফতারকৃত সকল নেতা-কর্মীকে অবিলম্বে মুক্তি দেয়ার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহŸান জানাচ্ছি।”