প্রধান সংবাদ

জামায়াতের নেতা-কর্মীদের বন্যাদুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর নির্দেশ

বন্যাদুর্গত অঞ্চলে মন্ত্রী ও সরকারী দলের পক্ষ থেকে কোন ত্রাণ তৎপরতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে না

১৭ আগস্ট ২০১৭, বৃহস্পতিবার, ১:৫০

ফাঁকা বুলি আওড়ানো বাদ দিয়ে বন্যাদুর্গত জনগণের জন্য জরুরী ভিত্তিতে পর্যাপ্ত পরিমাণে ত্রাণ সামগ্রী পাঠানোর জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর জনাব মকবুল আহমাদ আজ ১৭ আগস্ট প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “বন্যাদুর্গত অঞ্চলের নি:স্ব জনগণ সাহায্যের জন্য হাহাকার করছে। কিন্তু কোন সাহায্য পাচ্ছে না। মানুষের আহাজারীতে আকাশ-বাতাস ভারী হয়ে উঠলেও সরকারের টনক নড়ছে না। তাদের জন্য জরুরী ভিত্তিতে আশ্রয় দান, খাদ্য, বস্ত্রসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য ও চিকিৎসা সামগ্রীসহ চিকিৎসক দল পাঠানো প্রয়োজন।

ইতোমধ্যেই দেশের উত্তরাঞ্চলের ২৮টি জেলায় ভয়াবহ বন্যা দেখা দিয়েছে। দেশের এক তৃতীয়াংশের অধিক এলাকা বন্যার পানিতে তলিয়ে গিয়েছে। রাজধানী ঢাকাসহ দেশের ...


জনাব মকবুল আহমাদ

আমীরে জামায়াত

মিলিত হোন সম্মিলিত লক্ষ্যপানে

আমি বিশ্বাস করি যে, দেশে শান্তি-শৃঙ্খলা এবং ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করিতে হইলে শাসন-ক্ষমতা ধার্মিক, চরিত্রবান ও নিঃস্বার্থ লোকদের হাতে থাকা প্রয়োজন।

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী সমাজ ও রাষ্ট্রের সকল স্তরে এ ধরণের সৎ ও যোগ্য লোকের শাসন প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করিতেছে বলিয়া এই সংগঠনকে আমি আন্তরিক ভাবে সমর্থন করি।

রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ও অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য বাংলাদেশকে একটি কল্যাণ রাষ্ট্র হিসাবে গড়িয়া তুলিবার উদ্দেশ্যে আমি জামায়াতে ইসলামীর সহিত সযোগীতা করিব।

আমার জীবনকে নৈতিক দিক দিয়া উন্নত করিবার জন্য সর্বদা চেষ্টা করিব।