বিবৃতি

৫ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ৮:২৭

ফেনী নদীর পানি ভারতকে প্রত্যাহারের অধিকার দেয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরকালে আজ ৫ অক্টোবর ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে স্বাক্ষরিত সমঝোতা স্মারকের আওতায় ফেনী নদী থেকে ভারতকে ১.৮২ কিউসেক পানি প্রত্যাহার করার অধিকার দেয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমীর ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার আজ ৫ অক্টোবর প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “ফেনী নদী থেকে ভারতকে ১.৮২ কিউসেক পানি প্রত্যাহার করার অধিকার দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতের কাছে বাংলাদেশের স্বার্থ বিকিয়ে দিয়েছেন। এ ঘটনায় আমি গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি।

প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরের পূর্বে দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলো ভারতের নিকট বাংলাদেশের স্বার্থ বিকিয়ে না দিয়ে গঙ্গা ও তিস্তা নদীর পানির ন্যায্য হিস্যা আদায় করে দেশে ফেরার আহ্বান জানিয়েছিল। কিন্তু অত্যন্ত বেদনা ও পরিতাপের বিষয় তিনি ভারতের নিকট থেকে বাংলাদেশের স্বার্থ আদায় করার পরিবর্তে বাংলাদেশের ফেনী নদীর পানি দিয়ে এসে বাংলাদেশের স্বার্থ বিকিয়ে দিয়েছেন। তার জাতীয় স্বার্থ বিরোধী এ কর্মকান্ডে দেশবাসী বিক্ষুব্ধ ও মর্মাহত।

গঙ্গা ও তিস্তা নদীর পানির ন্যায্য হিস্যা আদায়ের ব্যাপারে কোন আলোচনা আদৌ হয়েছে কিনা তাও দেশবাসী জানে না। উপরন্তু তিনি ফেনী নদীর পানি ভারতকে দিয়ে এসেছেন। এতে তার সরকারের চরম ব্যর্থতাই প্রমাণিত হয়েছে। তিনি বাংলাদেশের জনগণকে হতাশ করেছেন। বাংলাদেশের স্বার্থ আদায়ে প্রধানমন্ত্রীর চরম ব্যর্থতায় দেশের জনগণ গভীরভাবে উদ্বিগ্ন ও ক্ষুব্ধ।”