সর্বশেষ সংবাদ

১২ জানুয়ারি ২০২১, মঙ্গলবার, ৫:৫২

মিরপুর ও কাফরুল এলাকার সুবিধা বঞ্চিত মানুষের সাথে মতবিনিময় ও মৌসুমী ফল উপহার প্রদান করেন আমীরে জামায়াত ডা. শফিকুর রহমান

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমীর ডা. শফিকুর রহমান বলেছেন, জামায়াতে ইসলামী একটি আদর্শবাদী, গণমুখী ও কল্যাণকামী রাজনৈতিক সংগঠন। আর্ত-মানবতার কল্যাণই জামায়াতের রাজনৈতিক আদর্শ। তাই আমরা দেশ ও জাতির যেকোন দুর্যোগকালীন মহুর্তে সাধ্যমত জনগণের পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। সে ধারাবাহিকতায় আজ আমরা আপনাদের জন্য সামান্য শীতবস্ত্র ও মৌসুমী ফল নিয়ে হাজির হয়েছি। আমাদের এই কাজকে দয়া বা অনুগ্রহ মনে করার সুযোগ নেই বরং গণমানুষের প্রতি নৈতিক দায়বদ্ধতা থেকেই আমাদের এই প্রয়াস। আর আপনারাও আমাদের ক্ষুদ্র প্রয়াসকে আন্তরিকতার সাথে গ্রহণ করে নিজেদের দায়িত্ব পালন করবেন বলে আশা করি। তিনি সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর কল্যাণে এগিয়ে আসতে সরকার, সকল রাজনৈতিক দল, সমাজের বিত্তবান মানুষ সহ নগরীর সবস্তরের দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান।

তিনি আজ রাজধানীতে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরীর কাফরুল দক্ষিণ থানার আয়োজিত কাফরুল ও ভাষানটেক এলাকায় সুবিধাবঞ্চিত মানুষের মাঝে মৌসুমী ফল ও শীতবস্ত্র বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। থানা আমীর অধ্যাপক আনোয়ারুল করিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের আমীর মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন ও কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য এবং ঢাকা মহানগরী উত্তরের সহকারি সেক্রেটারি লস্কর মো. তসলিম। উপস্থিত ছিলেন কাফরুল উত্তর থানা আমীর আব্দুল মতিন খান, সেক্রেটারী খান হাবিব মোস্তফা, ভাষানটেক থানা আমীর আলাউদ্দীন মোল্লা, কাফরুল উত্তর থানা আমীর তারেক রেজা তুহিন, শেরেবাংলা নগর আমীর আব্দুল আউয়াল আজম, ভাষানটেক থানার নায়েবে আমীর হাসান হাবীব, কাফরুল দক্ষিণ থানার নায়েবে আমীর রুহুল আমীন, মিরপুর থানার সাবেক আমীর জসীম উদ্দীন, মিরপুর থানার সাবেক নায়েবে আমীর মুহাম্মাদ শহীদুল্লাহ্, ভাষানটেক থানা সেক্রেটারি সৈয়দ রফিকুল ইসলাম ও কাফরুল দক্ষিণ থানার সেক্রেটারি নাজমুল হক প্রমুখ।

আমীর জামায়াত বলেন, আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন কয়েক দিনের মধ্যে সারাদেশের সার্বিক তাপমাত্রা কমে যেতে পারে। ফলে আগামী দিনে শীত আরও বাড়বে বলেই ধারণা করা হচ্ছে। এমতাবস্থায় নতুন করে শীতের প্রকোপ আশঙ্কা রয়েছে। তাই আমরা সামান্য শীতবস্ত্র নিয়ে আপনাদের পাশে এসেছি। মূলত, নাগরিক জীবনের যেকোন সমস্যা সমাধানের দায়িত্ব রাষ্ট্রের হলেও সরকার সে দায়িত্ব পালনে সফলতা দেখাতে পারছে না বরং সরকার তাদের ক্ষমতা দীর্ঘায়িত করতেই ব্যস্ত রয়েছে। এমতাবস্থায় একটি আদর্শবাদী, কল্যাণকামী ও গণমুখী রাজনৈতিক সংগঠন হিসেবে জামায়াতে ইসলামী নির্লিপ্ত থাকতে পারে না। তাই আমরা আমাদের সীমিত সামর্থ নিয়ে আপনাদের পাশে হাজির হয়েছি। গণমানুষের জন্য আমাদের এই কল্যাণকামীতা আগামী দিনেও অব্যাহত থাকবে-ইনশা আল্লাহ। তিনি আর্ত-মানবতার কল্যাণে সকলকে একযোগে কাজ করার আহবান জানান।