বিবৃতি

১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৬, মঙ্গলবার, ১১:১১

জামায়াত জঙ্গীবাদে বিশ্বাস করে না

দৈনিক কালের কণ্ঠের ১৫ ফেব্রুয়ারী অনলাইনে প্রকাশিত কতিপয় সংসদ সদস্য জঙ্গীবাদের পৃষ্ঠপোষকতা ও অর্থায়নের জন্য জামায়াতে ইসলামী এবং ইসলামী ছাত্রশিবিরকে দায়ী করে যে অসত্য বক্তব্য দিয়েছেন তার তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় প্রচার বিভাগের সেক্রেটারী অধ্যাপক মোঃ তাসনীম আলম আজ ১৬ ফেব্রুয়ারী প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “জনগণের ভোট ছাড়াই নির্বাচিত কতিপয় সংসদ সদস্য বিরোধীদল বিশেষ করে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরকে নির্মূল করার হীন রাজনৈতিক উদ্দেশ্যেই মহান জাতীয় সংসদে দাঁড়িয়ে ভিত্তিহীন অসত্য বক্তব্য দিয়েছেন। তারা জামায়াত ও ছাত্রশিবিরকে জঙ্গীবাদের পৃষ্ঠপোষক বলে উল্লেখ করেছেন। জঙ্গীবাদের অর্থায়নের জন্য জামায়াত ও ছাত্রশিবিরকে অন্যায়ভাবে দায়ী করা হয়েছে। কতিপয় সংসদ সদস্যের এ ধরনের অসত্য ও ভিত্তিহীন বক্তব্যের আমি তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের সাথে কোন জঙ্গী সংঠনের অতীতে যেমন কোন সম্পর্ক ছিল না, এখনও কোন সম্পর্ক নেই। জামায়াত জঙ্গীবাদে বিশ্বাস করে না। জামায়াতে ইসলামী একটি গণতান্ত্রিক ইসলামী দল। গণতান্ত্রিক নিয়মতান্ত্রিক পদ্ধতিতে জামায়াত কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে। জামায়াত জঙ্গীবাদকে ঘৃণা করে। তাই জামায়াত ও ছাত্রশিবিরের পক্ষ থেকে জঙ্গীবাদে সহায়তা এবং অর্থায়ন করার প্রশ্নই আসেনা। অথচ মহান জাতীয় সংসদে দাঁড়িয়ে কতিপয় সংসদ সদস্য জামায়াত ও ছাত্রশিবিরকে দায়ী করে অসত্য এবং ভিত্তিহীন বক্তব্য দিয়েছেন। এ সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই জামায়াত ও ছাত্রশিবিরকে জঙ্গীবাদের সাথে সম্পৃক্ত করার জন্য বহুবার অপচেষ্টা চালিয়েছে। কিন্তু এ পর্যন্ত জঙ্গীবাদের সাথে সম্পৃক্ততার কথা তারা প্রমাণ করতে পারেনি। আওয়ামী লীগ একদলীয় কর্তৃত্ববাদী সরকার কায়েমের লক্ষ্যেই জামায়াত ও ছাত্রশিবিরকে নিশ্চিহ্ন করার উদ্দেশ্যেই অপপ্রচার এবং মিথ্যাচারে নেমেছে।

আমি পরিস্কার ভাষায় বলতে চাই, জামায়াত ভূঁইফোর কোন সংগঠন নয়। জামায়াত জনগণের সমর্থন ও ভালবাসা নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। এ সরকার যতই অপপ্রচার ও মিথ্যাচার করুক না কেন জনগণ তাতে বিভ্রান্ত হবে না। জনগণের সমর্থন নিয়ে জামায়াত এগিয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ। কেউ জামায়াতের অগ্রগতি রুখতে পারবে না।
আমরা দফায় দফায় লক্ষ্য করছি যে, দৈনিক কালের কণ্ঠ পত্রিকা কর্তৃপক্ষ জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচারণা চালাচ্ছে। ভিত্তিহীন অসত্য প্রচারণা চালানো থেকে বিরত থাকার জন্য আমি কালের কণ্ঠ পত্রিকা কর্তৃপক্ষের প্রতি আহবানন জানাচ্ছি।

আমি জুলুমবাজ সরকারের এ ধরনের মিথ্যাচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহবান জানাচ্ছি।”