সর্বশেষ সংবাদ

২৬ অক্টোবর ২০১৮, শুক্রবার, ৯:৩৭

অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

সরকার রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার হীন উদ্দেশ্যেই অধ্যাপক আহসান উল্লাহকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করেছে

চট্টগ্রাম মহানগরী শাখা জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমীর অধ্যাপক আহসান উল্লাহকে গত ২৫ অক্টোবর রাতে তার বাসা থেকে পুলিশের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার এবং তার বাসার একটি রুমের দরজায় লাথি মেরে ভেঙ্গে ফেলে রুমের মধ্যে ঢুকে ব্যাপক ভাংচুর করার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমীর এবং সাবেক এমপি অধ্যাপক মুজিবুর রহমান আজ ২৬ অক্টোবর প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “সরকার রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার হীন উদ্দেশ্যেই বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর চট্টগ্রাম মহানগরী শাখার নায়েবে আমীর প্রবীন শিক্ষাবিদ অধ্যাপক আহসান উল্লাহকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করেছে। তারা শুধু তাকে গ্রেফতার করেই ক্ষ্যান্ত হয়নি তার বাসার একটি রুমের দরজায় লাথি মেরে ভেঙ্গে রুমে ঢুকে ব্যাপক ভাংচুর করেছে। আমি এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে সরকার নির্বাচন ছাড়া জোর করে ক্ষমতার থাকার জন্য ততই মরিয়া হয়ে উঠছে। তারই ফলশ্রুতিতে সরকার সারা দেশে জামায়াতসহ বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের অন্যায়ভাবে নির্বিচারে গ্রেফতার করছে। অধ্যাপক আহসান উল্লাহকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করার মধ্য দিয়ে সরকারের ফ্যাসিবাদী চরিত্রই অত্যন্ত নগ্নভাবে প্রকাশিত হয়েছে। বিরোধীদলের নেতা-কর্মীদের এইভাবে গ্রেফতার করে অতীতে যেমন কোন সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারেনি তেমনি বর্তমান সরকারও ক্ষমতায় থাকতে পারবে না ইনশাআল্লাহ। সরকারের দু:শাসনের বিরুদ্ধে তীব্র গণপ্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য আমি দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

জুলুম-নির্যাতন বন্ধ করে চট্টগ্রাম মহানগরী শাখা জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমীর অধ্যাপক আহসান উল্লাহসহ সারা দেশে জামায়াত ও বিরোধীদলের গ্রেফতারকৃত সকল নেতা-কর্মীকে অবিলম্বে মুক্তি দেয়ার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। ”