সর্বশেষ সংবাদ

২২ অক্টোবর ২০১৮, সোমবার, ৫:১৫

গণতন্ত্রের প্রতি সামান্যতম শ্রদ্ধা থাকলে সরকার পুলিশ দিয়ে লেবার পার্টির আলোচনা সভা পণ্ড করতে পারত না

আজ ২২ অক্টোবর প্রথমে জাতীয় প্রেসক্লাবে ও পরবর্তীতে ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন কার্যালয়ে আয়োজিত ২০ দলীয় জোটের শরীক দল বাংলাদেশ লেবার পার্টির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর আলোচনা সভায় পুলিশ বে-আইনীভাবে বাধা দিয়ে তা পণ্ড করে দেয়ার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য মাওলানা আবদুল হালিম আজ ২২ অক্টোবর প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন, “আজ ২২ অক্টোবর প্রথমে জাতীয় প্রেসক্লাবে ও পরবর্তীতে ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন কার্যালয়ে আয়োজিত বাংলাদেশ লেবার পার্টির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর আলোচনা সভায় পুলিশ বে-আইনীভাবে বাধা দিয়ে তা পন্ড করে দেয়ার ঘটনার আমি তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে মোকাবেলা করার জন্য সরকার পুলিশকে দলীয় লাঠিয়াল হিসাবে ব্যবহার করছে।

বাংলাদেশ লেবার পার্টি দেশের একটি বৈধ গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল। এই দলের সভা-সমাবেশে বাধা দেয়ার কোন এখতিয়ার পুলিশের নেই। বাংলাদেশ লেবার পার্টির সমাবেশ পণ্ড করে দিয়ে পুলিশ গর্হিত অপরাধ করেছে। কার্যতঃ সরকার বিরোধী দলের উপর এভাবে জুলুম-নির্যাতন চালিয়ে অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ এবং অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের পথকে রুদ্ধ করছে। এই ঘটনার মধ্য দিয়ে সরকারের একদলীয় ফ্যাসিবাদী চরিত্রই অত্যন্ত নগ্নভাবে প্রকাশিত হয়েছে। গণতন্ত্রের প্রতি সরকারের যদি সামান্যতম শ্রদ্ধা থাকতো তাহলে সরকার পুলিশ দিয়ে লেবার পার্টির আলোচনা সভা পণ্ড করতে পারত না।
সরকারের এ ধরনের ফ্যাসিবাদী কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে তীব্র গণপ্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য আমি দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।”