সর্বশেষ সংবাদ

৫ আগস্ট ২০১৭, শনিবার, ৭:১১

সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী নিয়ে দেয়া অর্থমন্ত্রীর বেআইনী বক্তব্য আদালত অবমাননার শামিল

অর্থমন্ত্রীর বিরুদ্ধে দেশের সর্বোচ্চ আদালত কী পদক্ষেপ গ্রহণ করেন তা দেখার জন্য দেশবাসী অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন

গত ৪ আগস্ট সিলেটের দক্ষিণ সুরমায় সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থাপনা পরিদর্শন শেষে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে “সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী আদালত যতবার বাতিল করবে ততবারই সংসদে এই সংশোধনী পাশ করা হবে” মর্মে যে বেআইনী বক্তব্য দিয়েছেন তার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমীর ও সাবেক জাতীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার আজ ৫ আগস্ট প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেন , “অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত সাংবাদিকগণের প্রশ্নের জবাবে ‘সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী আদালত যতবার বাতিল করবে ততবারই সংসদে এই সংশোধনী পাশ করা হবে। বিচারপতিদের চাকুরী সংসদই দেয়। বিচারকরা জনগণের প্রতিনিধিদের উপর খবরদারী করেন। অথচ আমরাই তাদের নিয়োগ দেই’ মর্মে যে সব বেআইনী বক্তব্য প্রদান করেছেন তা শিষ্ঠাচার পরিপন্থী এবং সুস্পষ্টভাবে আদালত অবমাননার শামিল।

সর্বোচ্চ আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে এ ধরনের বক্তব্য রাখার অধিকার অর্থমন্ত্রীর নেই। তার এ বক্তব্যে সর্বোচ্চ আদালতের প্রতি হুমকির সুর প্রতিধ্বনিত হয়েছে। তার এ বক্তব্যে প্রমাণিত হল সরকার বিচার বিভাগের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না। আমরা সুস্পষ্ট ভাষায় বলতে চাই অর্থমন্ত্রীর এ বক্তব্য বাংলাদেশের সাড়ে ষোল কোটি মানুষের বিশ্বাস ও চেতনার পরিপন্থী।  

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের বিরুদ্ধে দেশের সর্বোচ্চ আদালত কী পদক্ষেপ গ্রহণ করেন তা দেখার জন্য দেশবাসী অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন।”